বগুড়ায় গ্রাহকের ১২ কোটি টাকা ফেরৎ না দিয়ে পরিচালক উধাও - Amader Bangladesh

মোঃ রিফাত হোসেন, বগুড়া প্রতিনিধিঃ বগুড়া সদর উপজেলার নামুজা বন্দরে মল্লি­কা সমাজ উন্নয়ন সংস্থার গ্রাহকের আমানতের ১২ কোটি ফেরত না দিয়ে পরিচালক হেলাল উদ্দিন উধাও হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। জানা যায়, নামুজা বন্দরে মল্লি­কা সমাজ উন্নয়ন সংস্থার নির্বাহী পরিচালক হেলাল উদ্দিন তার সংস্থার নামে অগণিত গ্রাহকের কাছে থেকে প্রায় ১২ কোটি টাকা আমানত হিসেবে গ্রহন করে। আমানতের সময়সীমা অতিক্রম হওয়ার পরেও গ্রাহকদের টাকা যথা সময়ে ফেরত না দিয়ে ১৭ অক্টোবর’২১ তারিখে হেলাল  উদ্দিন স্বপরিবারে রাতের আধাঁরে আত্মগোপন করে। যার ফলে, প্রতিদিন অসংখ্য গ্রাহক তাদের জমাকৃত টাকা ফেরত পাওয়ার জন্য মল্লি­কা সমাজ উন্নয়ন সংস্থার অফিসে ধরনা দিচ্ছে।

তবে মল্লি­কা সমাজ উন্নয়ন সংস্থার পরিচালনা কমিটির অন্যান্য সদস্য মোজাফফর হোসেন, সহ-সভাপতি হযরত আলী নয়ন ও ক্যাশিয়ার সাগর আলীকে এলাকায় দেখা যাচ্ছে। উক্ত ঘটনায় নামুজা ঠাকুরপাড়া গ্রামের মৃত রমজান আলীর পুত্র আলমগীর হোসেন বাবু বাদী হয়ে বগুড়া সদর উপজেলা সমাজসেবা অফিসার বরাবরে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। উক্ত অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে গত ২৪/১০/২০২১ তারিখে বগুড়া সদর উপজেলা সমাজসেবা অফিসার মোঃ আব্দুল মমিন সরেজমিনে তদন্ত করে একটি প্রতিবেদন দাখিল করেন। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে অবৈধ্য লোন কার্যক্রম পরিচালনা করার জন্য উল্লে­খিত প্রতিষ্ঠানের নিবন্ধন বাতিল এবং প্রশাসনিক ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য নিবন্ধনকারী কর্তৃপক্ষের নিকট চিটি পাঠিয়েছেন। সবমিলিয়ে আমানতকারীরা জানেনা আদৌও তাদের টাকা ফেরত পাবে কি না। এ ব্যাপারে মল্লি­কা সমাজ উন্নয়ন সংস্থার নির্বাহী পরিচালক হেলাল উদ্দিনের মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। এমতাবস্থায় মল্লিকা সমাজ উন্নয়ন সংস্থায় সঞ্চয়ী ও আমানত গ্রাহকরা উদ্বেগ ও অনিশ্চয়তার মধ্যে দিন কাটাচ্ছে।